ওয়েবসাইট কি ? কিভাবে ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট খোলা যায় ? | What's website ? How to create a free website ?

নমস্কার বন্ধুরা আশা করি সকলে ভাল আছেন। আজ আমর জানবো ওয়েবসাইট কি? এবং কিভাবে আমরা একটি ওয়েবসাইট ফ্রিতে খুলতে পারি। আজকাল সকলের কছেই প্রায় মোবাইল বা ল্যাপটপ আছে আপনার কাছেও হয়তো কিছু  আছে তানাহলে আমার পোস্টটা দেখতেন কিভাবে।। আর আমরা তাইতে অনেক কিছু করে থাকি যেমন ভিডিও দেখা, গেম খেলা গান শোনা। কিন্তু এইসকল কাজ করতে আমাদের ইনটারনেটের দরকার হয় না। এছাড়া অন্য যেসকল কাজ আমরা করি যেমন Net Banking,  online shopping, electric bill pay, Facebook, business etc কাজের জন্য আমরা ইনটারনেট ব্যবহার করে থাকি। আর এই অনলাইন কাজের জন্য আমাদের কোন না কোন ওয়েবসাইটের ওপর নির্ভর করতে হয়। আমরা যখন গুগলে কিছু সার্চ করি তখন আমাদের সম্পূর্ণ তর্থ পাওয়ার জন্য কোন ওয়েবসাইটে যেতে হয়। আর যে আমাদের তর্থ দিয়ে থাকে সে ওই ওয়েবসাইটের মালিক। একটা ওয়েবসাইটের অনেক মালিক হতে পারে। আর অনেক গুলো ওয়েব পেজ মিলিয়ে একটা ওয়েবসাইট তৈরী। আর প্রডেক পেজে আলাদা ভাবে কিছু তর্থ সাজানো থাকে একদম বইয়ের মত।

মোবাইল দিয়ে ইউটিউব চ্যানেল কিভাবে খুলবো
ব্লগের জন্য সাইটম্যাপ কিভাবে বানাবেন

ওয়েবসাইট কি ? 

ওয়েবসাইট কি এককথায় বলতে গেলে অনেক গুলো ওয়েব পেজের সমষ্টিকে বলা হয়। মনে করুন আপনি ব্লগিন বিষয় শিখতে চান। এবার ব্লগের বিষয় একটা পোস্টেতো বলা সম্ভব না যেমন ব্লগিন শিখতে গেলে আপনাকে জানতে হবে ডোমেইন, হোস্টিং, সাইটম্যাপ, রোবট টেক্সট, css, html etc আর এই সকল তথ্য একটাই ওয়েবসাইটে অনেক গুলো পেজের মাধ্যমে থাকে।আর সেই সকল পেজ যখন  মিলিত হয় তাকে ওয়েবসাইট বলে। আপনিও এখন একটা ওয়েবসাইটের পেজে আছেন  ও ওয়েবসাইট কি সেেটা পড়ছেন। এখনও যদি না বুঝতে পারেন তাহলে আমাদের ব্লগের aparupbangla.com হোম পেজে চলে যান সেখানে গিয়ে দেখবেন অনেক ছোট ছোট পেজ আছে about, contact, sitemap, disclaimer,  terms, blogging, seo, adsense, social, Tricks etc এগুলো এগুলোকে ওয়েব পেজ বলে আর এই সকল পেজ নিয়ে তৈরী আমাদের এই ওয়েবসাইট আশা করি এবার বুঝতে পেরেছেন ওয়েবসাইট কি।

ফ্রী ওয়েবসাইট কিভাবে বানাবো

কেন ওয়েবসাইট প্রয়োজন 

ওয়েবসাইট কি জানার পরে আপনার মনে এই প্রশ্নটা আসতেই পারে কেন ওয়েবসাইট  প্রয়োজন  একটা ওয়েবসাইট থাকার অনেক সুবিধা আমি নিচে কিছু বিবরণ দিলাম।

  1. যদি আপনি মনে করেন বিশ্বের সমস্ত মানুষ আপনার বিষয় জানুক তাহলে একটা ওয়েবসাইট বানিয়ে আপনার বিষয়ে লিখতে পারেন।
  2. আপনার যদি কোন ব্যবসা থাকে অনলাইনে সেটা প্রমোট করতে পারবেন।
  3. আপনার যদি কোন প্রতিভা থাকে সেটা শেয়ার করে বিশ্বের সমস্ত মানুষকে দেখাতে পারেন।
  4. অনলাইন ঘরে বসে  ওয়েবসাইটে লিখে টাকা ইনকাম করতে পারেন।
এছাড়াও ওয়েবসাইট থাকার অনেক সুবিধা আছে।

ওয়েবসাইট বানাতে কি কি প্রয়োজন ? 

ওয়েবসাইট বিষয় এতো কিছু জানার পর যদি আপনার মনে হয় একটা ওয়েবসাইট বানাবেন তার জন্য আপনার প্রয়োজন 

E-mail - যদি আপনার কাছে ইমেইল না থাকে তাহলে গুগলের সাহায্যে mail.google.com এখান থেকে একটা gmail বানিয়ে নিন
Domain - ডোমেইন হলো ওয়েবসাইটের ঠিকানা আমার যেমন aparupbangla.com আপনার কাছে যদি কিছু বাজেট থাকে তবে GoDaddy.com থেকে ডোমেইন  কিনতে পারেন। GoDaddy কাস্টমারের সাথে আপনি বাংলায় ও কথা বলতে পারবেন। আর যদি  বাজেট নাও থাকে কোন বেপার না এখানে আমি  ফ্রী ওয়েবসাইট তৈরীর কথা বলবো।

ওয়েবসাইট কোথা থেকে বানাবো

ওয়েবসাইট বানানোর জন্য অনেক সাইট আছে যারা আমাদের ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরীর সারভিস দিয়ে থাক তাদের মধ্যে ফাস্ট blogger.com আর সেকেন্ড wordpress.com এদের দুজনের মধ্যেও অনেক তফাত আছে নিচে ছোট করে তার বিবরন দিলাম।

WordPress VS Blogger

  1. ব্লগার একটা ফ্রি সারভিস আর ওয়াডপ্রেস পেড।
  2. পারসোনাল কাজের জন্য ব্লগার ব্যবহার করা যায় ব্যবসা করার জন্য ওয়াডপ্রেস।
  3. ওয়াডপ্রেসে কিছু  করার জন্য প্লাগিন ব্যবহার করতে হয় তার জন্য আপনাকে প্রেমেন্ট করতে হবে। কিন্তু ব্লগার ফ্রি। 
  4. ওয়াডপ্রেসে যেকোনো প্রকার ওয়েবসাইট বানাতে পারেন। যেমন ~ Facebook,  Play store,  amazon,  YouTube আর ব্লগারে Article লেখার জন্য ঠিক। 
  5. যদি আপনি প্রফেশনাল ব্লগার হতে চান তাহলে ব্লগে  টাইম নষ্ট করবেন না। আর যদি আপনি আর পারশোনাল ব্যবহার করতে চাইলে ওয়াডপ্রেসে টাকা নষ্ট করবেন না।
  6. আামাদের ব্লগের সিকিউরিটি গুগল ফ্রি দিয়ে থাকে আর ওয়াডপ্রেসে ssl certificate কিনতে হয়।
ছোট করে ব্লগার আর ওয়াডপ্রেস বিষয়  বলার চেষ্টা করলাম আপনি যদি নতুন ব্লগিন শুরু করডে চান তবে আমি বলবো blogger ব্যবহার করুন এটা অনেক সোজা আর সম্পূর্ণ ফ্রি পরে টান্সফার বা ওয়াডপ্রেস থেকে ব্লগারে টান্সফার করে নিতে পারবেন। 

তবে বন্ধুরা আজ এতো কিছু জানার পর নিশ্চয় আপনার মন চায়ছে একটা ওয়েবসাইট বানাতে তাইনা কিন্তু  আপনি ঠিক করতে পারছেন না কোনটা ব্যবহার করবেন ওয়াডপ্রেস না ব্লগার? চিন্তা করবেন না আজ আমি আপনাদের ওয়াডপ্রেস ও ব্লগার ওয়েবসাইট দুটোই ফ্রিতে করার পদ্ধতি জানাবো। এখানে ওয়াডপ্রেসে ফ্রী ওয়েবসাইট কিভাবে বানাবো সেটা বলবো যারা ব্লগে ফ্রী ওয়েবসাইট বানাতে চান এই পোস্টটা দেখুন > ফ্রী ওয়েবসাইট ব্লগে কিভাবে বানাবো। আসুন ফ্রীতে ওয়াডপ্রেসে ওয়েবসাইট কিভাবে বানাই দেখে নেওয়া যাক।

কিভাবে ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট খোলা যায় ? | How to create a free website ?


১) প্রথমে www.wordpress.com সাইটে চলে যান Start your website ক্লিক করুন।

 ওয়াডপ্রেসে  ফ্রী ওয়েবসাইট কিভাবে বানাবো

২) এখানে আপনি রেজিস্টারও করতে পারেন অথবা আপনার Gmail দিয়েও লগইন করতে পারেন।

  1. এখানে আপনার Gmail দিন।
  2. এখানে আপনার ইউসার নেম। (যদি এক্সেপ্ট না করে নামের পিছনে কোন সংখ্যা দিন যেমন Banty5)
  3. এখানে পাসওয়ার্ড দিন
  4. এবার Create Account ক্লিক করুন।
 ওয়াডপ্রেসে  ফ্রী ওয়েবসাইট কিভাবে বানাবো

৩) এখানে আপনার টপিক সিলেক্ট করুন কোন বিষয় ওয়েবসাইট বানাতে চান। আমি ব্লগ সিলেক্ট করলাম।
 ওয়াডপ্রেসে  ফ্রী ওয়েবসাইট কিভাবে বানাবো

৪) এখানে ব্লগের নাম দিন। (যদি আপনার কাছে কোন ডোমেইন থাকে তাহলে সেই ডোমেইনের নামের সাথে ম্যাচ নাম রাখুন।
 ওয়াডপ্রেসে  ফ্রী ওয়েবসাইট কিভাবে বানাবো

৫) এবার যেপেজ খুলবে এখানে আপনার ডোমেইন সিলেট করুন। আপনার কাছে কোন ডোমেইন না থাকলে  Free পাশে Select ক্লিক করুন
 ওয়াডপ্রেসে  ফ্রী ওয়েবসাইট কিভাবে বানাবো

৬)  Start with a free site ক্লিক করুন।  (নোট~ অনেক সময় নিচের বক্সেও  Free লেখা থাকে দেখে  নেবেন)।
 ওয়াডপ্রেসে  ফ্রী ওয়েবসাইট কিভাবে বানাবো

৭) এবার আপনার ওয়েবসাইট তৈরী হয়ে গেছে প্রথমে পছন্দ মত Them  টা পাল্টে নিন তার জন্য Them ক্লিক করলে পাশে অনেক থিম দেখতে পাবেন।
 ওয়াডপ্রেসে  ফ্রী ওয়েবসাইট কিভাবে বানাবো

৮) এবার আপনার ইমেইল চেক করুন ওখানে একটা এসএমএস জাবে মেল ভেরিফাই করার জন্য ওখান থেকে ভেরিফাই করে নেবেন।

আশা করি ওয়াডপ্রেসে ওয়েবসাইট তৈরী করে আপনার ভাল লাগবে যদি এই বিষয়ে কারোর কোন প্রশ্ন বা কোথাও সমস্যা হলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন ধন্যবাদ।

Previous
Next Post »